• আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

”করোনায় বিভিন্ন দেশে অর্থনীতির মন্দা দেখা দিলেও বাংলাদেশের গতিটা সচল রাখতে পেরেছি“

| ডেস্ক এডিটর ৮:৩০ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ৬, ২০২১ অর্থনীতি, জাতীয়, বাংলাদেশ, রাজধানী

করোনা মহামারি থেকে বাঁচতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘মানুষের জীবন আগে বাঁচাতে হবে। স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং নিয়ম-নীতি মেনে নিজেকে ও অন্যকে সুরক্ষা করতে হবে।’

রোববার (০৪ এপ্রিল) সকালে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এ মনোভাবের কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অর্থনীতির মন্দাভাব দেখা দিলেও বাংলাদেশে আমরা কিন্তু গতিটা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি। প্রবৃদ্ধি অর্জনেও অন্য দেশগুলোর চেয়ে আমাদের, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর চেয়ে আমরা অনেক এগিয়ে আছি। আমাদের সেটা ধরে রাখতে হবে।

‘কিন্তু সাথে সাথে আমাদের দেশের মানুষের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড যেন সচল থাকে, এ বিষয়ে আমরা যথেষ্ট সচেতন। তবে মানুষের জীবনটা আগে। কারণ, জীবন যদি না বাঁচে তাহলে আমাদের অর্থনীতিই বা কী আর রাজনীতিই বা কী। কাজেই মানুষের জীবন আগে বাঁচাতে হবে।’

এ সময় করোনা নিয়ন্ত্রণে এনএসআই সদস্যদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের নির্দেশ দেন সরকারপ্রধান।

তিনি বলেন, ‘করোনা মহামারি আজকে বিশ্বব্যাপী একটা বিরাট সমস্যা। অর্থনীতি প্রায় স্থবির, মানুষের জীবনযাত্রাও স্থবির। হয়তো আমরা কিছুটা নিয়ন্ত্রণে রেখে যখন একটু মানুষের জীবন সচল করলাম তখন আবার নতুন করে দ্বিতীয় দফায় এই করোনা দেখা দিয়েছে।

‘করোনা ব্যবস্থাপনায় আপনারা অতীতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। বর্তমানে যে অবস্থাটা চলছে সেখানেও আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। করোনা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। সারা বিশ্বেই একই অবস্থা। আপনাদের আরও দায়িত্ব পালন করতে হবে।’

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অবঃ) তারিক আহমেদ সিদ্দিকও যুক্ত ছিলেন অনুষ্ঠানে।

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) প্রধান কার্যালয় প্রান্তে সংস্থার মহাপরিচালক মেজর জেনারেল টিএম জোবায়েরসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এসএস/জেটএম

,

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন Smersngbd.com@gmail.com মেইলে - Smersngbd.com@gmail.com