• আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

যে’ভাবে পরিস্কা’র করা হয় মহান আল্লাহ’র অন্যতম নিদর্শন সাফা-মারওয়া !

| ডেস্ক এডিটর ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১ ইসলাম

Æমহান আল্লাহর অন্যতম নিদর্শন সাফা-মারওয়া। এ দুই পাহাড় মসজিদে হারামের নিকট অবস্থিত। সাফা ও মারওয়ার মধ্যবর্তী দূরত্ব ৩০০ মি. (৯৮০ ফুট)।

পবিত্র কাবা ও তার পবিত্র স্থানগুলোর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করে হারামাইন শরিফাইনের পরিচালনা কমিটি।

এসব স্থানের পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে তাদের আলাদা পরিকল্পনাও রয়েছে। আল আরাবিয়া উর্দু মসজিদে হারামের গালিচা পরিস্কারের ইনচার্জ জাবের আল-ওয়াদানী বলেন,

সাফা ও মারওয়া পাহাড় পরিচ্ছন্নতার প্রতি বিশেষ যত্ন নেয়া হয়৷ মসজিদে হারাম পরিস্কার করার জন্য ব্যবহৃত উপকরণ ও সরঞ্জামাদি সাফা-মারওয়া পাহাড় পরিস্কার করার কাজে ব্যবহার করা হয়।

সাফা-মারওয়া যেভাবে পরিস্কার করা হয়তিনি বলেন, ঐতিহাসিক এই পাহাড় সাফা ও মারওয়া পরিস্কার করার জন্য একটি দল গঠন করা হয়েছে।

তারা প্রতিদিন পাহাড় এবং তার আশপাশ অত্যন্ত যত্নের সাথে পরিস্কার করে।এদিকে হারামাইন শরিফাইনের জেনারেল প্রেসিডেন্সির মহামারি প্রতিরোধক

ও পরিবেশ সংরক্ষণ বিভাগের পরিচালক হাসান আল-সুওয়াহিরি বলেন, মসজিদে হারাম এবং অন্যান্য পবিত্র স্থানগুলিকে সবধরনের পোকামাকড় এবং

অন্যান্য ক্ষতিকারক বস্তু থেকে রক্ষা করার জন্য অন্তত ২০টি টিম গঠন করা হয়েছে।তারা মসজিদে হারাম এবং অন্যান্য জায়গাগুলি পরিস্কার করার সাথে সাথে পোকামাকড়ও বিনাশ করে থাকে।

আরো পড়ুন: বিশ্বের একমাত্র দেশ সেনেগাল, যার স্বাধীনতা দিবস পালন হয় কুরআন খতমের মাধ্যমে !

আটলান্টিকের পূর্ব কিনারা ঘেঁষে আফ্রিকার পশ্চিম প্রান্তের দেশ সেনেগাল। এক লক্ষ ছিয়ানব্বই হাজার সাতশত বাইশ বর্গ কিলোমিটারের দেশটির রাজধানী ডাকার।

বাংলাদেশ থেকে সেনেগালের সময়ের ব্যবধান ৫ ঘন্টার। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখের বেশি। সেনেগালে শতকরা ৯৪ ভাগ মুসলমান।

এই মুসলিমরা শুধু নামেই মুসলিম নয়; তারা যথেষ্ট ধার্মিক। ধর্মচর্চায় সেনেগালবাসীর বেশ সুনাম রয়েছে। ৪ এপ্রিল সেনেগালের স্বাধীনতা দিবস। ১৯৬০ সালে ফ্রান্স থেকে তারা স্বাধীনতা লাভ করে।

সেনেগালের স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠান আফ্রিকার অন্যান্য দেশের মতো হলেও আলাদা একটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

সেটা হলো, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণে আয়োজিত সমাবেশে দাঁড়িয়ে পবিত্র কোরআন খতম দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত কোরআন তেলাওয়াতে আগ্রহীদের আগে থেকেই এক পৃষ্ঠা করে ভাগ করে দেওয়া হয়। সেনেগালের প্রচলিত কোরআন শরিফগুলো ৩০০ পাতার (৬০০ পৃষ্ঠা)।

সে হিসেবে কোরআন খতম দিতে প্রয়োজন হয় ৬শ’ মানুষের মাত্র ২ থেকে ৩ মিনিট।মানুষ বেশি হলে একাধিক খতম দেওয়া হয়।

কোনো দেশের স্বাধীনতা দিবসের আনুষ্ঠানিকতায় এটি একটি নতুন মাত্রা। -মুসলমানদের স্বর্ণালি ইতিহাস আরও সংবাদ ছেলের বিয়েতে কুরআন পাঠের আয়োজন করে সাড়া ফেললেন নোয়াখালীর

ব্যবসায়ী ছেলের বিয়ের দিনে গান-বাজনার পরিবর্তে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের আয়োজন করে সাড়া ফেলেছেন নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হাফিজুল্যাহ চৌধুরি।

ব্যতিক্রমধর্মী এ আয়োজন সম্পর্কে ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হাফিজুল্যাহ চৌধুরী বলেন, ছেলের বিয়েতে এ আয়োজন আল্লাহর রাজি খুশির জন্য।

আমি পুরো দুনিয়ার সব মুসলমান মাবাবার কাছে অনুরোধ করবো তারাও যেন তাদের সন্তানের বিয়েতে এমন আয়োজন করেন। আল্লাহ এর ফলে আগামীর সংসারে তাদের বরকত দান করবেন।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন Smersngbd.com@gmail.com মেইলে - Smersngbd.com@gmail.com