• আজ ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আমার দাদু কবিগান করতেন: তনু রায়

| জাবির জাহিদ ১:৪২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২, ২০২১ বিনোদন, সেলিব্রেটি
সংগীতশিল্পী তনু রায়

ভাওয়াইয়া সংগীতশিল্পী তনু রায়।দীর্ঘদিন ধরে রংপুর বেতারে নিয়মিত ভাওয়াইয়া পরিবেশন করছেন তিনি।এই সময়ে ভাওয়াইয়া গান নিয়ে বারবার হাজির হচ্ছেন এই সংগীতশিল্পী।অন্যরকম একটি অবস্থানও তৈরি করেছেন ভাওয়াইয়া সংগীতে।সাক্ষাৎকার নিয়েছেন জাবির জাহিদ

আছেন কেমন?

জ্বি, ভালো আছি।

গানের প্রতি উৎসাহিত হলেন কীভাবে?

আমার দাদু কবি গান করতেন।তাঁর একটি সেবাশ্রম ছিলো সেখানে দিন-রাত কবি গান সহ বিভিন্ন মহাজনী গান হতো।সেখান থেকেই গানের প্রতি উৎসাহিত হওয়া।

বর্তমানে গান নিয়ে আপনার পরিকল্পনা কী?

লোকসংগীত নিয়ে কাজ করা বিশেষ করে ভাওয়াইয়া।ভাওয়াইয়ার চর্চা যাতে শুধু উত্তরবঙ্গে নয় সারা বাংলাদেশ তথা বিশ্বে পৌঁছে যায় সেইজন্য কাজ করতে চাই।

আপনি রংপুর বেতারে ভাওয়াইয়া গানের নিয়মিত শিল্পী। দর্শকশ্রোতাদের ভালোবাসা কেমন পান?

দর্শক শিল্পীদের প্রাণ।দর্শকদের জন্যই গান করা তাঁরা যখন গান শোনেন এবং কোনো অনুষ্ঠানে গান করতে গেলে বেতারে বা টিভিতে করা গান গুলো শুনতে চান, তখন ভীষণ ভালো লাগে।

গানকে বলা হয় গুরুমুখী বিদ্যা।গুরুর দীক্ষা ছাড়া ভালো গাওয়া সম্ভব হয় না। এ কথার সঙ্গে আপনি কী একমত?

অবশ্যই একমত।গুরু আশীর্বাদ ছাড়া গান করা সম্ভব নয়।গানকে মনে ধারণ করতে গেলে গুরুকে প্রথমে মনের শ্রেষ্ঠ আসনে রাখতে হবে।

আপনার ভাওয়াইয়া গানের গুরু কে?

আমার ভাওয়াইয়া গুরু উত্তরবঙ্গের ভাওয়াইয়ার প্রাণ পুরুষ পরম পূজনীয় ভূপতি ভূষণ বর্মা।

বাংলাদেশে বর্তমানে ভাওয়াইয়া চর্চা কেমন হচ্ছে?

উত্তর বঙ্গের বাইরে ভাওয়াইয়ার চর্চা খুব কম হচ্ছে বলে আমি মনে করি।

ভাওয়াইয়া গানে তেমন কিছু পরিবর্তন ঘটছে কী?

হ্যাঁ অবশ্যই ঘটেছে।সময়ের সাথে তাল রেখে বর্তমান প্রজন্মের কাছে নতুন মিউজিক অ্যারেজমেন্ট করে এই গান পৌঁছে দিচ্ছেন শিল্পীরা।

এ ব্যাপারে সরকারের কী পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে আপনি মনে করেন?

ভাওয়াইয়া গানগুলো সংরক্ষণের ব্যাপারে সরকারের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।

নতুন প্রজন্মের প্রতি আপনার কিছু বলার আছে কী?

লোকগান আমাদের ঐতিহ্য।আসুন আমরা এই গানগুলোকে বেশি বেশি শুনি, চর্চা করি এবং সারা বিশ্বের সামনে তুলে ধরি।

সময় দেয়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

আপনাকেও ধন্যবাদ ভাইয়া।


করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন মেইলে - smersngbd@gmail.com

<