• আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মক্কায় ৫০ লাখ ওমরাহ পালনকারীই করোনামুক্ত!

| Abdul Ahad Al Junayet ৫:৪৫ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক

প্রাণঘাতী বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ৮ মাস ওমরাহ বন্ধ থাকার পর গত তিন মাস ধরে পবিত্র নগরী মক্কায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে ওমরাহ কার্যক্রম। সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) তথ্য মতে, গত তিন মাসে পবিত্র নগরী মক্কার মসজিদে হারামে ইবাদতকারী ও ওমরাহ পালনকারী ৫০ লাখ মুসল্লির কেউই কারোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি। খবর গালফ নিউজ।

কোভিড-১৯ থেকে ওমরাহ পালনকারীরা মুক্ত। করোনায় দীর্ঘ প্রায় ৮ মাস বন্ধ থাকার পর অক্টোবরের ৪ তারিখ থেকে পুনরায় পবিত্র নগরী মক্কায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র ওমরাহ পালন শুরু হয়।

তারপর ইবাদত করার মসজিদে হারাম সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া। এ সময়ে ৫০ লাখ মুসলিম ওমরাহ পালন ও ইবাদত বন্দেগিতে অংশগ্রহণ করে। আশার কথা হলো- এসব ওমরাহ ও ইবাদতকারীদের কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি।

সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) তথ্যমতে, দেশটির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রী ড. মোহাম্মদ সালেহ বেনতেন এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গত অক্টোবর থেকে ৫ মিলিয়ন তথা ৫০ লাখ লোক ওমরাহ ও ইবাদতে অংশগ্রহণ করেন। যাদের কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি।

সৌদি আরব ধাপে ধাপে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধাপে ধাপে ওমরার অনুমতি দেয়। প্রথম ধাপে ৪ অক্টোবর থেকে শুধুমাত্র সৌদির স্থানীয় ও দেশটি অবস্থানকারীদের ওমরাহ করার অনুমতি দেয়। শুরুতে প্রতিদিন ৬ হাজার ব্যক্তি ওমরাহ পালন করেছে।

দ্বিতীয় ধাপে ১৮ অক্টোবর থেকে ওমরাহ শুরু হয়। সে সময় ওমরাহ পালনকারীর সখ্যা বাড়িয়ে ১৫ হাজার করা হয়। তৃতীয় ধাপে ১ নভেম্বর থেকে সৌদির বাইরেরসহ প্রথমে প্রতিদিন ২০ হাজার পর্যায়ক্রমে দৈনিক ৬০ হাজার ব্যক্তিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওমরাহ করার অনুমতি দেয় দেশটি।

আলহামদুল্লিাহ! যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওমরাহ পালনকারী ও ইবাদতকারী ৫০ লাখ ব্যক্তির কেউ গত তিনমাসে পবিত্র নগরী মক্কায় করোনায় আক্রান্ত হননি।

উল্লেখ্য, নতুন ভাইরাসজনিত চাপের কারণে সৌদি আরব গত ২১ ডিসেম্বর থেকে এক সপ্তাহের জন্য সব আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল বন্ধ করে দিয়ে তাদের সীমানা বন্ধ করে দিয়েছে। সরকারী ঘোষণা অনুসারে বন্ধটি আরও এক সপ্তাহ বাড়তে পারে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন Smersngbd.com@gmail.com মেইলে - Smersngbd.com@gmail.com